Recent News
খুলনায় করোনায় তিনজন ও উপসর্গে দুজনের মৃত্যু

খুলনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনজন এবং উপসর্গ নিয়ে আরো দুজনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মারা যাওয়া তিনজনের মধ্যে দুজন খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের আওতাভুক্ত করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের মুখপাত্র ডা. ফরিদ আহমেদ আজ মঙ্গলবার বিষয়টি জানিয়েছেন।

করোনায় মারা যাওয়া তিনজন হলেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) খুলনা শাখার সাবেক মহাসচিব ও ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) খুলনা শাখার সভাপতি ডা. আক্তারুজ্জামানের মেয়ে ঐশি (৩২), সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম আমজাদ হোসেনের মা নুরজাহান বেগম (৯৫) ও খুলনার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক রফিকুল ইসলাম (৬৮)।

অন্যদিকে, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া দুজনের মধ্যে একজন হলেন খুলনা সিটি করপোরেশনের কর আদায় শাখার কর্মকর্তা এস এম মোকারেম হোসেন। তিনি করোনার উপসর্গ নিয়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। অন্যজনের ব্যাপারে বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি। তবে তিনি খুমেক হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

বিএমএ খুলনা শাখার সাবেক সভাপতি ডা. রফিকুল হক বাবলু জানান, তাঁর দীর্ঘদিনের সহকর্মী ডা. আক্তারুজ্জামানের একমাত্র মেয়ে ঐশি আজ মঙ্গলবার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ঐশির স্বামীও করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন। তাঁরা নগরীর মুন্সীপাড়া এলাকায় থাকতেন।

অন্যদিকে, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম আমজাদ হোসেন জানান, তাঁর মা নুরজাহান বেগম করোনায় আক্রান্ত হয়ে আজ মঙ্গলবার মহানগরের ফর্টিস এসকর্টস কার্ডিয়াক ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

News Reporter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *